আবহাওয়ার খবর শীত-বৃষ্টি: জেনে নিন সুস্থ থাকার উপায়

আবহাওয়ার খবর শীত-বৃষ্টি: জেনে নিন সুস্থ থাকার উপায়

গোসল
এমন দিনে গোসল করতে ইচ্ছা না হলে তাহলে নিজেকে আর জোর করতে জাবনে না। অনেক ঠান্ডার মধ্যে বৃষ্টিতে ভিজে গোসল করলে ঠান্ডা লেগে যাবে। যদি গোসল করতে চান তাহলে অবশ্যই গরম পানি দিয়ে গোসল করবেন। তবে মাথায় পানি দিবে না। আবহাওয়ার খবর বিস্তারিত।

এখন চলছে শীত মৌসুম, তার সাথে চলছে আবার বৃষ্টি। আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণে ছোট বড় সবাই শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ছে। এর ফলে সর্দি-জ্বর হয়ে বসে।এমন দিনে সুস্থ থাকার দরকার।

পোশাক
এই দিনে ঠান্ডা বাতাস হয়। বৃষ্টি হয় আকাশ পরিষ্কার থাকলে শীত বেড়ে যায়। অবশ্যই ভালো ও গরম জামা-কাপড় পরবেন। কোন গাড়ির জানলার পাশে বসলে মাথা, গলা ভাল করে ঢেকে নিবেন।গাড়ির হাওয়ায় কিন্তু ঠান্ডা লেগে যাবে।

বৃষ্টিতে ভেজা
বৃষ্টি থামলে বাড়ি থেকে বের হবেন।মাঝ রাস্তায় বৃষ্টি আসলে কোন কিছুর তলায় গিয়ে দাঁড়িয়ে যাবেন। অনেক ব্যস্ত থাকলেও বৃষ্টিতে ভিজা যাবে না। কোন রকম বৃষ্টি থেকে বাচা গেলেও রাস্তার পানিতে পা ভিজে যাবে। বাসাই পৌঁছেই পা ভাল করে ধুয়ে নিবেন।বৃষ্টির মধ্যে জরুলি কাজে বাড়ি থেকে বের হতে হয় তাহলে ব্যাগে জামা, তোয়ালে নিবেন।

জুতা
বৃষ্টি দিনে অবশ্যই পা ঢেকে জুতা পরবেন।জুতা পরলে ঠান্ডায় যেমন ভালো লাগবে, তেমনই সংক্রমণের হাত থেকেও বেচে থাকবেন। বৃষ্টির পানি যদি পায়ে লাগে তাহলে ঠান্ডা লাগার সম্ভাবনা বেশি থাকে। মোজা পরলে পা সুরক্ষিত থাকে। রাস্তায় জমা পানিতে যদি হাঁটতে ইচ্ছা হয় তাহলে মোজা অবশ্যই খুলে রাখেন। ভেজা মোজা যদি পায়ে থাকে তাহলে শরীর খারাপ করে

হাত
সংক্রমণ থেকে দূরে থাকার প্রাথমিক শর্ত হাত পরিষ্কার রাখুন। এই দিনে ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়ার প্রকোপ বাড়ে বেশি। হাত সবচেয়ে সংক্রমণ বেশি ছড়ায়। তাই হাত সব সময় পরিষ্কার রাখতে হবে। ব্যাগে বা পকেটে লিকুইড সোপ, টিস্যু, স্যানিটাইজার রাখা উচিত।

মুখ
এসব দিনে আপনার কাছে অবশ্যই রুমাল রাখবেন। মুখ, চোখ, নাকের মাধ্যমে ফ্লু ভাইরাসের সংক্রমণ বেশি হতে পারে। যতটা সম্ভব হবে মুখে সব সময় হাত দিবেন না। হাঁচি হলে, চোখ কটকট করলে সাথে সাথে রুমাল ব্যবহার করবেন।

স্ট্রিট ফুড
সংক্রমণের আখড়া হচ্ছে কিন্তু স্ট্রিট ফুড। শীত, বৃষ্টিতে ঘুম বেশি পায়, মন থাকে না, অবসাদ আসেন। এমন সময় মনের ভিতর যা ইচ্ছা চটপটা
করে খেতে ইচ্ছা করে। তবে ইচ্ছা হলেও খাওয়া যাবে না। বিশেষ এগুলা ভাজাভুজি, তেলযুক্ত খাবার এগুলা খাবেন না। বাসা থেকে লাঞ্চ নিয়ে বের হবেন। বাইরের পানি, খেলে পেট খারাপ করবে, জ্বরের সম্ভাবনা বেশি থাকে।

হার্বাল ডোজ
এমন দিনে সব চেয়ে ভালো হার্বাল হচ্ছে চা। এ ছাড়াও লবঙ্গ, দারুচিনি, তুলসি, গোলমরিচ, আদা এগুলা খাবেন। এতে শরীর ভালো থাকে। এনার্জিও বেশি পাবেন।

আরও জানুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.