প্রেমিকা ঐন্দ্রিলা সেনকে বেড রুমে নিয়ে প্যান্ট ছাড়াই ছবি পোস্ট করলো অঙ্কুশ হাজরা

Actor Ankush Hazra And Oindrila Sen, Ankush Oindrila, Ankush Oindrila news, Ankush Oindrila Video,

টালিউডের অন্যতম জনপ্রিয় জুটি অঙ্কুশ হাজরা (Ankush Hazra)ও ঐন্দ্রিলা সেন (Oindrila Sen)।সম্প্রতি করোনার জেরে ঘরে বসে বসে বেশি বেশি করে খেয়ে একটু মোটা হয়ে গিয়েছিলেন অঙ্কুশের প্রেমিকা ঐন্দ্রিলা সেন।
যার জন্য প্রতিনিয়ত তাকে অনেক ট্রোলিং সহ্য করতে হয়েছে।তবে এমন নায়িকা বোধহয় নেই যারা কখনও ট্রোলিং-এর শিকার হননি।কারন আমাদের সমাজে সচ্ছ কাঁচে ‘পারফেক্ট’ শব্দটা ঠিক যেন হীরের মত।

যার কারনে এই প্রবণতা আরও গভীর হয়ে বসেছে ডিজিটালের এই যুগে৷মানুষের কাছে যত সহজলভ্য হয়েছে ইন্টারনেট, ততই বেড়েছেই চলেছে ট্রোলিং।প্রায় প্রতিদিনই কারোর চেহারা নিয়ে,বা কারোর উচ্চতা নিয়ে,বা কারোর গায়ের রঙ নিয়ে চলে চুল চেড়াচেড়ি বিশ্লেষণ।আর সেই লোকদের মাপকাঠিতে পান থেকে চুনে গেলেই শুরু হতে থাকে বডি শেমিং (Body Shaming)।

‘নায়িকা’আর ‘মোটা’ এই দু টি শব্দ যেন একপ্রকার বিরোধী। ‘চিকনি চামেলি’ টাইপের ফিগার না হলে নাকি নায়িকা হওয়া যায় না এই রকম ধারনা রয়েই গিয়েছে আমাদের সমাজে।
এই তো গত কয়েক মাস আগে ও বাংলা টেলিভিশনের পর্দায় অন্যতম জনপ্রিয় পরিচিত মুখ হলেন ঐন্দ্রিলা সেন (oindrila sen)। যিনি কিনা নিজের অতিরিক্ত ওজন এবং মেদের জন্য প্রায়শই সমালোচিত হয়েছিলেন৷

কারন করোনা সংক্রমণের জেরে বাসায় বসে থাকা আর ইচ্ছে মত ভুরি ভোজ এখন প্রায় মানুষেরই বাড়তি মেদের একটি কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে বটে। তাই এর ব্যাতিক্রম নন অভিনেত্রী নায়িকা ঐন্দ্রিলা সেনও।এই তো কিছুদিন আগে ও তাঁর শরীরে বাড়তি মেদের একটা স্পষ্ট ছাপ ছিল।আর তার জন্য সোশ্যাল মিডিইয়াতে ব্যাপক ট্রোলের মুখে পড়েছিলেন তিনি (Oindrila Sen)।তবে নেটিজেনদের কাছ থেকে তখন জুটেছিল ‘মোটা হাতি’র মতো তকমা এবং আরো কত কিছু ।

কিন্তু ঐন্দ্রিলা সেন (Oindrila Sen) সেসবে কান না দিয়ে বরং নিজের চেষ্টা আর পরিশ্রমের উপরেই একমাত্র ভরসা রেখেছিলেন এই অভিনেত্রী।আর মন দিয়েছিল শরীর চর্চাতে, ওবশেষে এবার সেই ফলটা প্রকাশ্যে এলো।
সম্প্রতি তিনি নিজের মেদ ঝরিয়ে ট্রোলার দের মুখ ভোঁতরা করে দিয়েছেন অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরার((Ankush Hazra)প্রেমিকা বান্ধবী ঐন্দ্রিলা সেন (Oindrila Sen)।তবে তার এমন কঠিন লড়াইতে যে যেটাই বলুক না কেন তিনি (Oindrila Sen) পাশে পেয়েছেন সবচেয়ে কাছের মানুষ অঙ্কুশ হাজরাকে।

তবে আর যাই হোক এ বার অঙ্কুশের এত দিনের ট্রোলের জবাব ও দিলেন ঐন্দ্রিলা সেন। ঐন্দ্রিলা সেন মাত্র ৬মাসে ১৬ কে জি ওজন কমিয়েন!এরপর ম্যাজিক ছিপছিপে ঐন্দ্রিলাকে দেখে পুরো মুগ্ধ হয়ে গেছেন প্রেমিক অঙ্কুশ হাজরা।আর অমনি মেদ ঝরা নতুন ঐন্দ্রিলা সেনের ছবি দিয়ে ইনস্টা গ্রামে জানিয়েছেন প্রেমিকা ঐন্দ্রিলার এই উদ্যোগ এবং পরিশ্রমের জন্য তিনি সত্যি গর্বিত। তাই ছবি দেখে কিছুতেই চুপ করে থাকতে পারেননি এই অভিনেতা সাথে দীর্ঘ দিনের বন্ধু বিক্রম চট্টোপাধ্যায় ।
তিনি লিখেছেন, “কালো টিকা লাগা। বাচ্চা মেয়েদের এত ‘হট’ হতে নেই।”


অঙ্কুশ হাজরা এদিন ঐন্দ্রিলা সেনের ট্রান্সফর মেশনের একটি ছবি শেয়ার করেছেন আর তার সাথে প্রেমিকার জোরদার প্রশংসাও করেছেন এই অভিনেতা।এরপর তার আরো দুইটি ছবি শেয়ার করেছেন আর অঙ্কুশ ক্যাপশনে লেখিছেন, ”
ট্রান্সি ফরমেশন, তোমার জন্য আমার কি যে গর্ব হচ্ছে তা বলে বোঝাতে পারছিনা। তবে তোমাকে আরও দূরে যেতে হবে কিন্তু , কিপ রকিং”ওকে।

প্রসঙ্গত সময় একটু পেলেই বেড়াতে বেরিয়ে যান এই যুগলে। এইতো সদ্য ঘুরে এসেছেন পাহাড় থেকে।তবে নেট মাধ্যমে তারা দুজনেই বেশ সক্রিয়। আর পাহাড়ে গিয়ে বাদ;শা এবং নিকিতা গান্ধীর ‘জু গনু’ গানের রিলস ভিডিও বানানোর পাশা পাশি অঙ্কুশ হাজরা প্রেমিকা ঐন্দ্রঅইন্দ্রিলার সেই একই গানে নাচতেৎচ্যালেঞ্জও ছুরে দিয়েছিলেন।আর এরপর দেরি না করে সোজা সোজি সেই চ্যালেঞ্জ টি লুফে নিয়েছিল ঐন্দ্রিলা সেন ও।তবে অঙ্কুশ হাজরার মতোই ছন্দে ভক্তদের মন জিতে নিয়েছেন তিনিও।আর শুধু নাচটাই নয় এইতোনগত বছর ই তাঁদের ২য় ছবি ‘লাভ ম্যারেজ’(Love Marriage)-এর শ্যুটিং টাও শেষ করে ফেলেছেন অঙ্কুশ আর অইন্দ্রিলা।তবে এখন সেই ছবি দেখার জন্য অধির আগ্রহে অপেক্ষায় দর্শক ভক্তরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.